সবাইকে অবাক করে কনস্টেবল থেকে পুলিশ ক্যাডার হলেন হাকিম

সবাইকে তাক লাগিয়ে ৪০তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন নরসিংদীর ছেলে মোহাম্মদ আব্দুল হাকিম। এর আগে ২০১৩ সালে তিনি চাকরিতে যোগদান করেছিলেন পুলিশ কনস্টেবল হিসেবে। দেশের শীর্ষস্থানীয় বিদ্যাপীঠের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে লড়াই করে চাকরির পাশাপাশি প্রস্তুতি নিয়ে বিসিএসের পুলিশ ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হওয়ার স্বপ্নটা বাস্তবে রূপ দেওয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার প্রশংসায় মেতেছেন অনেকে।

গতকাল বুধবার ৪০তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশের পর এস এম আকবর নামে তার এক সহকর্মী ফেসবুকে জানান, আলহামদুলিল্লাহ, ভীষণ গর্বের সংবাদ। ৪০তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন পুলিশ সদস্য হাকিম।

তিনি আরও লেখেন, দেশের শীর্ষস্থানীয় বিদ্যাপিঠের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে লড়াই করে চাকুরির পাশাপাশি প্রিপারেশন নিয়ে বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হওয়াটা স্বপ্নের মতোই! আর এই স্বপ্নটাকে বাস্তবে রূপান্তর করলেন মোহাম্মদ হাকিম ভাই। এমন অদম্য মেধাবীরা হতে পারে এ সমাজের অনুপ্রেরণা। তিনি ২০১৩ সালে বাংলাদেশ পুলিশ কনস্টেবল পদে যোগদান করেন।

ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার জুবায়ের জুয়েল রানা ফেসবুকে লেখেন, পুলিশ কনস্টেবল থেকে ৪০তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডার। বিসিএসের সৌন্দর্যই বাড়িয়ে দিলো সহকারী পুলিশ সুপার হাকিম। স্যালুট জানাই তোমাকে আর তোমার প্রচেষ্টাকে। তুমি সকল বিসিএস পরীক্ষার্থীদের আদর্শ।

সাংবাদি সানাউল হক সানী লেখেন, পুলিশ কনস্টেবল থেকে ৪০তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডার নরসিংদীর ছেলে আব্দুল হাকিম। ২০১৩ সালে যোগদান করেছিলেন পুলিশ কনস্টেবল হিসেবে। কিন্তু একটা মানুষ যখন স্বপ্ন পুষে রাখে, আর সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য দৃঢ় প্রতিজ্ঞ থাকে। তখন সবকিছু সহজ মনে হয়। আব্দুল হাকিমও পেরেছেন। ৪০তম বিসিএসে সবাইকে তাক লাগিয়ে সুপারিশ প্রাপ্ত হয়েছেন পুলিশ ক্যাডারে।

“আমি এমন আর একজনকে দেখেছিলাম। সাব-ইন্সপেক্টর ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চে কাজ করতেন। পড়াশোনা করেছিলেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে গাইবান্ধার একটি কলেজে। লোকটাকে খুব ভাল লাগত, সারাক্ষণ বই নিয়ে থাকতেন। কবি নজরুলের মাজারের ভিতরে, কখনো চারুকলার নিরিবিলি স্থানে দেখতাম বই পড়তেন। ৩১তম বিসিএস পুলিশ ক্যাডার হয়েছিলেন। মানুষ তার স্বপ্নের সমান বড়। ঠিক এটাই সত্যি।”

Leave a Comment