1. admin@bdnews88.com : newsroom :
  2. wadminw@wordpress.com : wadminw : wadminw
মাঝ পথে ছেড়ে দিয়েছিল ট্যাক্সি ড্রাইভার, আজ সেই আইডিয়া থেকে ৪৮ হাজার কোটি টাকার মালিক - বিডি নিউজ
January 24, 2023, 12:15 pm
Breaking News:

মাঝ পথে ছেড়ে দিয়েছিল ট্যাক্সি ড্রাইভার, আজ সেই আইডিয়া থেকে ৪৮ হাজার কোটি টাকার মালিক

  • Update Time : Tuesday, March 22, 2022
  • 77 Time View
পথে ছেড়ে দিয়েছিল ট্যাক্সি ড্রাইভার আজ সেই আইডিয়া থেকে ৪৮ হাজার কোটি টাকার মালিক

ওলার নতুন “ইলেকট্রিক স্কুটি” বর্তমানে ভারতে চর্চায় রয়েছে। স্কুটিটি লঞ্চের আগে থেকেই বুকিং শুরু হয়। একদিনেই সারা দেশে ১ লাখের বেশি প্রি-বুকিং পেয়েছে এই নতুন স্কুটি। এটিই বিশ্বের সবচেয়ে প্রি-বুক করা স্কুটি। সারাদেশে ক্রমাগত বাড়ছে পেট্রোল ও সিএনজির দাম। কয়েক মাস আগে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়কড়িও বলেছিলেন যে “অদূর ভবিষ্যতে বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরিতে ভারত এক নম্বরে থাকবে”।

দেশে বৈদ্যুতিক স্কুটারের ক্রমবর্ধমান ক্রেজ দেখে ওলা ঘোষণা করেছিল যে গ্রাহকরা মাত্র ৪৯৯ টাকায় এই স্কুটারগুলি বুক করতে পারবেন। ওলাও গ্রাহকদের ব্যাপক সাড়া পেয়ে খুশি। স্কুটারটি লঞ্চ হওয়ার পরেও এটি মানুষের কাছ থেকে ভালো সাড়া পাচ্ছে।

ক্যাব বুকিং এর প্রেক্ষাপটে ওলা নামটি আমাদের সবার কাছেই পরিচিত। ভারতের যেকোনো শহরে যাওয়ার পর আপনি অবশ্যই একটি ওলা ট্যাক্সি ব্যবহার করেছেন যা আপনাকে আপনার পছন্দসই ঠিকানায় নিয়ে যায়। শুধু ট্যাক্সিই নয়, ওলা থেকে অটোরিকশা ও বাইকও ভাড়া নেওয়া যায়। ওলা বর্তমানে ভারতের বৃহত্তম ক্যাব প্রদানকারী। ওলা মাত্র ১০-১১ বছরে ভারতে নিজেদের পরিচয় তৈরি করেছে।

ওলা গঠনের গল্পও সমান মজার। লুধিয়ানার (পাঞ্জাব) এক যুবক ভবিশ আগরওয়াল মুম্বাইতে আইআইটি শিক্ষা লাভ করেন এবং মাইক্রোসফটে চাকরি পান। সেখানে কাজ করার সময়, ভবিশ তার নিজস্ব প্রযুক্তি তথ্য ওয়েবসাইট Desitech.in শুরু করেন। তিনি ভারতে প্রযুক্তির নতুন স্টার্টআপগুলি সম্পর্কে তথ্য সরবরাহ করতেন। কিন্তু একদিন যে তার প্রচেষ্টা এতটা সফল হবে, সেটা তার ধারণা ছিল না।

ভবিশ একবার তার কিছু বন্ধুদের সাথে সপ্তাহান্তে ভ্রমণের জন্য বেঙ্গালুরু থেকে বান্দিপুরে ট্যাক্সি নিয়েছিল। মহীশূরে হঠাৎ ট্যাক্সি ড্রাইভার ট্যাক্সি থামিয়ে আরও টাকা চাইতে শুরু করেণ। কিন্তু ভবিশ সেই বেশিটা দিতে রাজি ছিলেন না। অবশেষে ট্যাক্সি ড্রাইভার সেখানেই সবাইকে নামিয়ে চলে যান। তখন ২৩ বছর বয়সী ভবিশের মনে একটা চিন্তা এলো যে, তার যদি এমন সমস্যা হয় তাহলে সাধারণ মানুষকে এর থেকেও বেশি কষ্টের সম্মুখীন হতে হবে।

ভবিশ প্রযুক্তির প্রতি আগ্রহী ছিলেন, যেখান থেকে তিনি ভাড়া গাড়ি পরিষেবার ধারণা পান। তিনি বাড়িতে বিষয়টি জানালে তার পরিবার তাকে পাগল বলে ঠাট্টা করে। কিন্তু ভবিশ কারো কথা শোনেনি। ২০১০ সালে তিনি মাইক্রোসফটে তার ভাল বেতনের চাকরি ছেড়ে দিয়ে তার বন্ধু অঙ্কিত ভাটিয়ার সাথে একটি ওলা কোম্পানি শুরু করেন।

১১ বছর পর আমরা যদি ভবিশের সেই সিদ্ধান্তের কথা চিন্তা করি, তাহলে এটাই পাব যে, আজ Ola ভারতের বৃহত্তম ভাড়া গাড়ি পরিষেবা প্রদানকারী হয়ে উঠেছে। একজন ট্যাক্সি ড্রাইভারের দ্বারা অপমানিত সেই ভবিশ এখন ওলার মাধ্যমে ১৫ লক্ষেরও বেশি ট্যাক্সি ড্রাইভারকে কর্মসংস্থান দিচ্ছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category